অভিবাসন হোক নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী .এ.কে আবদুল মোমেন

অভিবাসন হোক নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী .এ.কে আবদুল মোমেন

ইমিগ্রেশন নিউজ২৪ ডট কমের যাত্রায় শুভেচ্ছা জানিয়ে বিশেষ ভিডিওবার্তা দিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.এ.কে আবদুল মোমেন,এম.পি। বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে বসবাসরত সকল প্রবাসী বাংলাদেশীকে  আন্তরিক অভিবাদন ও নববর্ষেও শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, আমি জেনে অত্যন্ত আনন্দিত হয়েছি যে, “নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ অভিবাসন” বিষয়টিকে প্রতিপাদ্য করে যাত্রা শুরু করছে ইমিগ্রেশন নিউজ২৪।

অভিবাসন একটি চলমান প্রক্রিয়া। আমরা চাই আমাদের দেশের তরুণ সমাজ যারা বিদেশে যেতে চান তারা জেনে শুনে বুঝে যাবেন। সঠিক তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। কারণ একটি ভুল সিদ্ধান্ত জীবন ও পরিবারের বিপদ ডেকে আনে। আমি আশা করি ইমিগ্রেশন নিউজ ২৪ অভিবাসন সংক্রান্ত সঠিক তথ্যের ভান্ডার হবে।

আমাদের অভিবাসীরা আমাদের ভাই, বোন, বন্ধু, প্রিয় সন্তান। এদেশের জন্মলগ্নে যেমন তাঁদের প্রভূত ত্যাগ আর সংগ্রামের ইতিহাস আছে, তেমনি আজও তাঁরা দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অবদান রেখে চলেছেন। তাঁদের কষ্টার্জিত বৈদেশিক মুদ্রা দেশে পাঠিয়ে দেশের তাঁরা আমাদের অর্থনীতির  চাকা সচল রাখেন। কোভিড-১৯ এর এই কঠিনতম সময়েও তাঁরা এমনকি পূর্বের তুলনায় বেশি বৈদেশিক মুদ্রা পাঠিয়ে আমাদের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভকে অন্য উচ্চতায় পৌঁছে দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার তাঁদের এই অবদানকে গভীরভাবে মূল্যায়ন করে এবং তাঁদের কল্যাণের জন্য ঐকান্তিকভাবে কাজ করতে বদ্ধ পরিকর।

আমি নিজে আমার জীবনের উল্লেখযোগ্য সময় প্রবাসী হিসেবে কাঠিয়েছি। প্রবাসীদের একজন হিসেবে তাঁদের আবেগ-অনুভূতি, দেশের প্রতি তাঁদের মমত্ববোধ এবং সর্বোপরি তাঁদের প্রয়োজনের বিষয়ে আমি সম্যক অবগত। আমি পররাষ্ট্র মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে অর্থনৈতিক কূটনীতি ও জনকূটনীতির উপর প্রভূত গুরুত্বারোপ করি যার একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অংশ হলো প্রবাসীদের কল্যাণ, তাঁদের প্রাপ্য সেবার মান উন্নত ও দ্রুততর করা এবং দেশের অর্থনীতিতে তাঁদের অবদান রাখার প্রক্রিয়াকে সহজতর করা। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি এ প্রক্রিয়ায় আমরা অনেকখানি সফল হয়েছি। আমরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও দূতাবাসগুলোতে প্রবাসীদের সুবিধার্থে হটলাইন চালু করেছি। এছাড়াও কোভিড পরিস্থিতিতে কিছু কিছু দূতাবাসে মেডিকেল হটলাইন চালু হয়েছে। আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে যে, প্রয়োজন হলে আপনারা এসব ব্যবস্থার সুযোগ নিন।

তবে আমি এও অবগত আছি যে, আমাদের সরকারী কার্যালয়গুলো ও আমাদের দূতাবাসসমূহের অধিকতর জনবান্ধব ও প্রবাসীবান্ধব হওয়ার অবকাশ আছে। আমরা নিয়মিত এ বিষয়ে আমাদের দূতাবাসগুলোকে নির্দেশনা দিয়ে থাকি।

প্রবাসীদের জন্য আয়বর্ধক ও জীবন-মান উন্নয়নের লক্ষ্যে দূতাবাসমূহে আমাদের সীমিত সামর্থ্যের মধ্যেই প্রশিক্ষণের ব্যাবস্থা করার লক্ষ্যে আমরা কাজ করতে চাই । আপনারা জেনে আনন্দিত হবেন যে স্বল্প পরিসরে পাইলট আকারে আমাদের দুএকটি দূতাবাসে এরূপ প্রশিক্ষণের আয়োজন করে উল্লেখ করার মতো ফলাফল পাওয়া গেছে। তবে বিষয়টিকে সার্বজনীন আকারে বৃহত্তর রূপ প্রদান করতে এ বিষয়ে আপনাদের, বিশেষত প্রবাসী কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ ও যারা তুলনামূলক সুবিধাজনক অবস্থানে আছেন তাঁদের, একান্ত সহযোগীতা প্রয়োজন হবে।

চলমান মুজিব বর্ষ তথা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার রজতজয়ন্তীর প্রেক্ষাপটে দূতাবাসসমূহের কার্যক্রমে প্রবাসীদের অংশগ্রহণ বেড়েছে। তবে আমি চাই বিদেশে আমাদের দূতাবাসগুলো একসময় প্রবাসীদের সামাজিক ও জনকল্যাণমূলক কর্মকান্ডের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠুক।

আশা করি, দেশের বাইরে প্রবাসীদের কর্মকান্ড ও আমাদের দূতাবাস গুলোর নানা খবরও তুলে ধরা হবে ইমিগ্রেশন নিউজ ২৪-এর মাধ্যমে। আমার অনুরোধ থাকবে এর উদ্যোক্তারা যেনো যাচাই বাছাই করে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করেন ।

আমার শুভেচ্ছা ইমিগ্রেশন নিউজ ২৪ এর জন্য। নতুন বছরে বিশ্ব হউক কোভিড মহামারীর প্রভাব থেকে মুক্ত – সকলের জন্য এই শুভ কামনা রইলো।

Leave a Reply