করোনা মহামারিতে নথিপত্রহীন অভিবাসীদের দিকেও নজর দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র
অভিবাসনের বৈধ কাগজপত্র না থাকায় করোনায় ফেডারেল প্রণোদনা পায়নি নথিপত্রহীন অভিবাসীরা। এখন তাদের নাগরিক প্রণোদনা দেওয়ার উদ্যোগ নিচ্ছে রাজ্য সরকার।

করোনা মহামারিতে নথিপত্রহীন অভিবাসীদের দিকেও নজর দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

ইব্রাহীম চৌধুরী, নিউইয়র্ক :

যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসীদের অভয়ারণ্য হিসেবে পরিচিত নিউইয়র্ক ও নিউজার্সি অঙ্গরাজ্য শুধু বৈধ অভিবাসী নয়, এই করোনা মহামারিতে নজর দিচ্ছে নথিপত্রহীন অভিবাসীদের দিকেও। অভিবাসনের বৈধ কাগজপত্র না থাকায় করোনায় ফেডারেল প্রণোদনা পায়নি নথিপত্রহীন অভিবাসীরা। এখন তাদের নাগরিক প্রণোদনা দেওয়ার উদ্যোগ নিচ্ছে রাজ্য সরকার। উদারনৈতিক রাজ্য নিউইয়র্ক ফেডারেল প্রণোদনা তহবিল থেকে নথিপত্রহীন অভিবাসীদের জন্য বরাদ্দ করেছে ২ দশমিক ১ বিলিয়ন ডলার।

নিউজার্সি রাজ্যের গভর্নর একই ধরনের পরিকল্পনার ঘোষণা করেছেন। ডেমোক্র্যাট গভর্নর ফিল মারফি একটি নির্বাহী আদেশে রাজ্যের নথিপত্রহীন অভিবাসীদের জন্য প্রণোদনা বাবদ ৪০ মিলিয়ন ডলার বরাদ্দের পরিকল্পনা করেছেন। নিউজার্সিতে কীভাবে এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হবে বা লোকজন কীভাবে এই অর্থ পাওয়ার জন্য আবেদন করবে, তা এখনো জানানো হয়নি।

নিউইয়র্ক রাজ্যে নথিপত্রহীন অভিবাসীদের প্রণোদনা দেওয়ার প্রক্রিয়াটি অনেক দূর এগিয়ে গেছে। গত সপ্তাহে রাজ্যসভা ২১২ বিলিয়ন ডলারের বাজেট অনুমোদন করেছে। এ অনুমোদিত বাজেটের মধ্যেই নথিপত্রহীন অভিবাসীদের জন্য প্রণোদনার বরাদ্দ দেওয়া অর্থ যোগ করা হয়েছে। এর আগে অভিবাসীদের আরেক স্বর্গরাজ্য হিসেবে পরিচিত ক্যালিফোর্নিয়ায় নথিপত্রহীন অভিবাসীদের জন্য এককালীন ৫০০ ডলার করে প্রণোদনা দেওয়া হয়েছিল। নিউইয়র্ক রাজ্য নথিপত্রহীনদের জন্য উদার সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে এসেছে। প্রাকযোগ্যতা অনুযায়ী, নথিপত্রহীন অভিবাসীরা নিউইয়র্কে ৩ হাজার ২০০ ডলার থেকে ১৫ হাজার ৬০০ ডলার পর্যন্ত পাওয়ার সুযোগ রয়েছে।

ফিসক্যাল পলিসি ইনস্টিটিউট নামের একটি সংগঠনের তথ্য অনুযায়ী, নিউইয়র্কে ঘোষিত কর্মসূচির আওতায় ৩ লাখের বেশি নথিপত্রহীন অভিবাসী করোনাকালীন এই প্রণোদনা সুবিধা পাবে। রাজ্যের কিছু আইনপ্রণেতা অবশ্য এই প্রণোদনার বিরোধিতা করেছিলেন। তবে তাদের আপত্তি টেকেনি। অন্যদিকে নথিপত্রহীন অভিবাসীদের জন্য প্রণোদনা সহযোগিতা তহবিল ঘোষিত হওয়ায় খুশি রাজ্যের উদারনৈতিক আইন প্রণেতারা। গত এক বছর ধরে উদারনৈতিক পক্ষগুলো এ ধরনের একটি তহবিল গঠনের জন্য আন্দোলন করে আসছিলেন। এ নিয়ে নিউইয়র্কে অনশন কর্মসূচি পর্যন্ত পালিত হয়েছে।

অ্যাসেম্বলিম্যান কারম্যান ডি লা রোসা বলেন, ‘আমরা মানুষের মর্যাদার জন্য আন্দোলন করেছি। নথিপত্রহীন অভিবাসীদের জন্য অর্থ সহযোগিতা কর্মসূচি গ্রহণের মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হয়েছে, আমরা অনগ্রসর অভিবাসীদের জন্য উৎকৃষ্ট কাজকে প্রাধান্য দিচ্ছি।’

নিউইয়র্কে যেসব নথিপত্রহীন লোকজন কোভিড-১৯ শুরু হওয়ার পর অর্থনৈতিক বিপর্যয়ে পড়েছেন, আয় কমেছে এবং নথিপত্র না থাকায় ফেডারেল প্রণোদনা পাননি, তারা এই তহবিল থেকে অর্থপ্রাপ্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। কোভিড-১৯ সংক্রমণে মারা যাওয়া কোনো পরিবারের পরিচালনার দায়িত্ব পড়েছে, এমন নথিপত্রহীন লোকজনও এই প্রণোদনার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

এই কর্মসূচিতে নিউইয়র্কে কোভিড-১৯ চলাকালীন সময়ে সপ্তাহে ৩০০ ডলারের বেকার ভাতার প্রায় সমপরিমাণ যোগ করে সর্বোচ্চ ১৫ হাজার ৬০০ ডলার পর্যন্ত সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারের আবেদনকারীদের দেওয়া হবে। যাদের অভিবাসনের নথিপত্র নেই, কিন্তু ট্যাক্স রিটার্ন করেছেন তারা সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারের প্রণোদনা পাবেন। এর জন্য তাদের দাখিল করা আয়করের তথ্য বা আগে কাজ করেছেন এমন কোনো চাকরিদাতার কাছ থেকে দেওয়া প্রমাণপত্রসহ আবেদন করতে হবে।

নথিপত্রহীন অভিবাসীদের যারা কোনো আয়কর দাখিল করেননি, তারা এককালীন ৩ হাজার ২০০ ডলার পেতে পারেন। যারা ১২ মাসে ২৬ হাজার ৮০০ ডলারের বেশি উপার্জন করেছেন. তারা এই তহবিলে আবেদন করার সুযোগ পাবেন না। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে রাজ্যের লেবার ডিপার্টমেন্ট বা শ্রম বিভাগ প্রণোদনার বিস্তারিত আবেদন প্রক্রিয়ার কথা জানাতে পারে বলে জানা গেছে।

নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু ক্যুমো বলেছেন, ‘অভিবাসনের নথিপত্র নেই বলে আমরা সাহায্য করতে চাই না, এমন নয়। সঠিকভাবে এ ধরনের সহযোগিতা করার মধ্যে সমস্যাও আছে।’ তিনি বলেন, নথিপত্রহীন অভিবাসীদের প্রণোদনা অর্থ বিতরণের সময় যাতে কোনো ধরনের জালিয়াতি না হয়, সেদিকে কড়া নজর রাখতে রাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেলকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নিউইয়র্ক রাজ্যের শ্রম বিভাগ তাদের ওয়েবসাইটে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু করলে বিস্তারিত জানা যাবে। আবেদনকারীকে রাজ্যে বসবাসের প্রমাণ ও নিজের পরিচয় নিশ্চিত করে আবেদন করতে হবে বলে পলিসি ইনস্টিটিউটের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

নিউজার্সি রাজ্য গভর্নর নির্বাহী আদেশে এমন প্রণোদনা ঘোষণা করতে পারেন বলে সংবাদমাধ্যম পলিটিকোর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। নিউজার্সিতে নথিপত্রহীন অভিবাসীরা কত করে পাবেন বা আবেদনের প্রক্রিয়া কেমন হবে—তা জানার জন্য গভর্নরের নির্বাহী আদেশ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

গত সপ্তাহে হিস্পানিক নাগরিক সংগঠনের পক্ষ থেকে রাজ্য গভর্নরের কাছ দাবি জানানো হয়েছে। এতে নিউজার্সির নথিপত্রহীন অভিবাসীদের ফেডারেল সহযোগিতার অনুরূপ নগদ দুই হাজার ডলার এবং কর্মহীনদের জন্য সপ্তাহে ৬০০ ডলারের সমান প্রণোদনা ঘোষণার দাবি জানানো হয়। রাজ্যের গভর্নর ফিল মারফি হিস্পানিক নাগরিক সংগঠনের এই দাবির সঙ্গে একমত বলে মন্তব্য করেছেন।

Leave a Reply