গ্রীষ্মেই দেশের বাইরে ভ্রমণ করতে পারবেন কানাডিয়ানরা
আন্তর্জাতিক ভ্রমণের ক্ষেত্রে ভ্যাকসিন পাসপোর্ট নিয়ে আরও কিছু বিষয় স্পষ্ট করার প্রস্তাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।

গ্রীষ্মেই দেশের বাইরে ভ্রমণ করতে পারবেন কানাডিয়ানরা

আহসান রাজীব বুলবুল :

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, সবকিছু স্বাভাবিক হলে কানাডার নাগরিকরা গ্রীষ্মের মধ্যেই দেশের বাইরে ভ্রমণে যেতে পারবেন। আন্তর্জাতিক ভ্রমণের ক্ষেত্রে ভ্যাকসিন পাসপোর্ট নিয়ে আরও কিছু বিষয় স্পষ্ট করার প্রস্তাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।

বুধবার (৫ মে) অটোয়ার একটি সংবাদ সম্মেলনে ট্রুডো পরামর্শ দিয়ে বলেন, গ্রীষ্মের মধ্যে কানাডিয়ানরা আবার দেশের বাইরে ভ্রমণ করতে পারবেন। অন্যান্য দেশগুলোর সঙ্গে কানাডাও কোভিড-১৯ এর টিকা নেওয়ার বিষয়টি প্রমাণের জন্য প্রশংসাপত্রের সঙ্গে প্রয়োজনীয় নথি সামঞ্জস্য করবে। তার সরকার প্রয়োজনীয় ভ্রমণ সংক্রান্ত নথি তৈরি করতে অন্যান্য দেশের সঙ্গে কাজ করবে বলে জানায় ট্রুডো।

উল্লেখ্য, কানাডার প্রধান চারটি প্রদেশ ব্রিটিশ কলাম্বিয়া, অন্টারিও, কুইবেক ও আলবার্টায় করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। যা জনমনে আতঙ্কের সৃষ্টি করছে। প্রতিদিনই আক্রান্তের সংখ্যা অস্বাভাবিকভাবে বেড়েই চলেছে। ইতোমধ্যেই কয়েকটি প্রদেশে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। বিভিন্ন প্রদেশে কিন্ডারগার্টেন থেকে ১২ গ্রেড পর্যন্ত স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

অন্যদিকে কানাডায় প্রবেশ ও অভ্যন্তরীণ ভ্রমণ আবারও সীমিত করার কথা ভাবছে সরকার। কানাডা এক মাসের জন্য ভারত ও পাকিস্তানের সঙ্গে ফ্লাইট স্থগিত করেছে। পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ওপর কঠোরভাবে গুরুত্বারোপ করেছে। এদিকে কানাডা ২০২২ থেকে ২০২৪ সালের মধ্যে করোনা টিকার ঘাটতি রোধে কয়েক কোটি ডোজ টিকার ব্যবস্থা করেছে। চুক্তি হয়েছে একাধিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে।

টিকা উৎপাদনকারী একাধিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি শেষে কয়েক কোটি ডোজ সুরক্ষিত রাখার কথা জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। এখন পর্যন্ত কানাডায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১২ লাখ ৫৭ হাজার ৩২৮ জন। ২৪ হাজার ৪৫০ জন মারা গেছেন ও সুস্থ হয়েছেন ১১ লাখ ৫১ হাজার ২০৭ জন।

Leave a Reply