জরুরি প্রয়োজনে ৫টি ভারতীয় ভিসা সেন্টার সেবা প্রদান করবে
জরুরি প্রয়োজনে দেশে পাঁচটি ভিসা সেন্টারে সেবা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় হাইকমিশন।

জরুরি প্রয়োজনে ৫টি ভারতীয় ভিসা সেন্টার সেবা প্রদান করবে

ই‌মি‌গ্রেশন নিউজ ডেস্ক :

করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে চলমান বিধিনিষেধের মেয়াদ আগামী ৫ মে পর্যন্ত বাড়িয়েছে সরকার। এ পরিস্থিতিতে জরুরি প্রয়োজনে দেশে পাঁচটি ভিসা সেন্টারে সেবা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় হাইকমিশন।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) রাতে এক বার্তায় এ তথ্য জানায় ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন। এতে বলা হয়, এপ্রিলের ২৮ থেকে আগামী ৫ মে পর্যন্ত লকডাউনের সময় বাড়ানোয় খুব জরুরি প্রয়োজনে ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, সিলেট ও খুলনার ভারতীয় ভিসা সেন্টার সেবা প্রদান করবে।

যেকোনো জরুরি প্রয়োজনে visahelp.dhaka@mea.gov.in ঠিকানায় যোগাযোগের অনুরোধ করেছে হাইকমিশন। এর আগে, গত ১৪ এপ্রিল প্রথম দফায় বিধিনিষেধ জারি করার পর বাংলাদেশে অবস্থিত সব ভারতীয় ভিসা সেন্টারের কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। পরবর্তী এক সপ্তাহের লকডাউনেও ভারতীয় ভিসা সেন্টারের কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়।

ভারতীয় স্টেট ব্যাংকের ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশে ১৫টি ভিসা আবেদনপত্র কেন্দ্র (আইভ্যাক) আছে। সেগুলো ঢাকা (যমুনা ফিউচার পার্ক), যশোর, খুলনা, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম, সিলেট, রাজশাহী, রংপুর, ঠাকুরগাঁও, সাতক্ষীরা, বগুড়া, নোয়াখালী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও কুমিল্লায় অবস্থিত।

এদিকে, ভারতে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করায় গত সোমবার থেকে দেশটির সঙ্গে সব ধরনের সীমান্ত বন্ধ করেছে বাংলাদেশ সরকার, যা আগামী ৯ মে পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। এমন পরিস্থিতিতে দেশটিতে অবস্থান করা বাংলাদেশি নাগরিকদের মধ্যে যাদের ভিসার মেয়াদ ১৫ দিন বা তার কম রয়েছে, তারা যথাযথ অনুমোদন সাপেক্ষে বেনাপোল, আখাউড়া ও বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে তাদের ১৪ দিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

অন্যদিকে, বাংলাদেশ থেকেও কোনো ভারতীয় নাগরিক জরুরি প্রয়োজনে দেশে ফিরতে চাইলে সহযোগিতা করবে ভারতীয় হাইকমিশন।

Leave a Reply