জুম লাইভের তিনটি ছোট নাটক নিয়ে মঞ্চে আসছেন রিয়াজ মাহমুদ
‘জুম লাইভের তিনটি ছোট নাটক নিয়ে মঞ্চে আসছেন অভিনেতা রিয়াজ মাহমুদ’

জুম লাইভের তিনটি ছোট নাটক নিয়ে মঞ্চে আসছেন রিয়াজ মাহমুদ

ইমিগ্রেশন নিউজ ডেস্ক :  বাংলাদেশের নাট্যাভিনেতা। পড়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে। বাংলাদেশের মঞ্চ মাতিয়েছেন একসময়। ঢাকা অন্যতম নাট্য সংগঠন সময়-এর সাথে যুক্ত ছিলেন। ঢাকার মঞ্চে জনপ্রিয় প্রযোজনা ‘৭১-এর ক্ষুদিরাম’, ‘সাদাঘোড়া’,  ‘শেষ সংলাপ’ ’ভাগের মানুষ’ সহ প্রভৃতি প্রযোজনায় অভিনয় করেছেন বিভিন্ন সময়ে। ২০১৬সালে অভিবাসী হয়েছেন কানাডায়। এর পর থেকে এখানকার নাট্য জগতকে রাঙাতে কাজ করে চলেছেন তিনি।

যদিও কানাডার শিল্প জগতে মানিয়ে নেওয়া কঠিন। কিন্তু রিয়াজ মাহমুদ চেষ্টা করেছেন, পেরেছেন এবং নিয়মিতি ভাবে কাজ করবার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন । তিনি এখন কানাডার নাট্যমঞ্চ মাতাচ্ছেন অভিনয় দক্ষতা দিয়ে। বর্তমানে কানাডার মঞ্চনাটকের মূল ধারায় একজন পেশাদার অভিনয় শিল্পী হিসেবে কাজ করছেন রিয়াজ মাহমুদ। বিভিন্ন সময় অভিনয়ের মাধ্যমে দারুণ প্রশংসা কুড়িয়েছেন। দু’হাজার বিশ সালে টরন্টো আর্টস কাউন্সিল কর্তৃক গুরুত্বপূর্ণ মেন্টরশীপ প্রোগ্রামের জন্য চুড়ান্ত ভাবে নির্বাচিত হয়ে কাজ করছেন কানাডার মূলধারার থিয়েটারে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে। বর্তমানে তিনি টরন্টোর পেশাদার থিয়েটার দল টরন্টো ল্যাবরেটরী থিয়েটার কোম্পানীর একজন স্থায়ী সদস্য হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন।

তবে মহামারী অন্যান্য সবকিছুর মতো শিল্প চর্চায় বাধ সাধে। বাধাগ্রস্ত হয় মঞ্চ অভিনয়ও। শিল্পের এই শাখাটির চর্চা অত্যন্ত কঠিন। অনেক কিছু ভার্চুয়ালি করা গেলেও মঞ্চ অভিনয় আলাদা। এর জন্য সরাসরি উপস্থিতি গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু মহামারীতে বিকল্প হিসেবে ভার্চুয়াল জগতেও মঞ্চ অভিনয় নিয়ে দর্শকের কাছে এসেছেন নাট্যশিল্পের সাথে জড়িত মানুষেরা। অ্যালুমনাই থিয়েটারের  লিজার্ড সিজন নাটকটি মহামারীর জন্য সব প্রস্তুতির পরও স্থগিত হয়ে গেলে এর সাথে যুক্ত সকলে হতাশায় নিমজ্জিত যখন তখনই ন্যাশনাল আর্টস সেন্টার হ্যাশটাগ ক্যানাডা পারফর্মস ভার্চুয়াল পারফর্ম সিরিজ আয়োজন নিয়ে এগিয়ে আসে যাতে সংশিল্ট শিল্পীদের আর্থিক ও মানসিক ক্ষতি পুষিয়ে নেয়া যায়। চলমান প্যান্ডেমিকে নিজেদের স্কিলকে আরও ধারালো করে নিতে গত কিছুদিন আগে মঞ্চ প্রযোজনা ‘স্টিচেস’র জুম লাইভ সম্প্রচার হয়ে গেলো। টরোন্টোর অন্যতম হ্যাভেন থিয়েটারের প্রযোজনাটি মার্ক ওয়েবার এর চরিত্রগুলো অবলম্বনে নাট্যরূপ ও নির্দেশনা দিয়েছিলেন জোয়েল হ্যাসজার্ড, আর নাটকটির হ্যারি চরিত্রে অভিনয় করেছেন রিয়াজ মাহমুদ।

জুম লাইভের তিনটি ছোট নাটক নিয়ে মঞ্চে আসছেন রিয়াজ মাহমুদ

তারই ধারাবাহিকতায় হ্যাভেন থিয়েটার এবার নিয়ে আসছে অনেকগুলো নতুন প্রযোজনার সমন্বয়ে জুম রেকর্ডেড ভার্চুয়াল থিয়েটার উৎসব । ছো্ট ছোট দৈর্ঘের নাটক নিয়ে ‘শর্ট প্লে ফেস্টিভ্যাল’-‘নাইন প্লেস ইন নাইনটি মিনিটস’ শিরোনামে হ্যাভেন থিয়েটারের মহামারী সময়ে নতুন চিন্তার থিয়েটার উৎসব এটি। ৩০ জনের বেশি কানাডিয়ান শিল্পী নিয়ে ৯টি  মিনিয়েচার নাটকের এই প্রযোজনাটি জুম লাইভের জন্য সাজানো হয়েছে। প্রতিটি নাটক তার নিজস্ব ও ব্যতিক্রমী গল্পে মঞ্চায়িত হবে এ বছরের এপ্রিল মাসে।

হ্যাভেন থিয়েটারের এই প্রযোজনা গুলোর মঞ্চে ও নেপথ্যে রয়েছেন অভিনেতা রিয়াজ মাহমুদ। তিনি নতুন দেশে, বদলে যাওয়া সময়ে একজন থিয়টার কর্মী হিসেবে নতুনভাবে থিয়েটার তৈরিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছেন। হ্যাভেন থিয়েটারের আগামী উৎসবের  নয়টি নাটকের তিনটি প্রযোজনায় রিয়াজ অভিনেতা ও নাট্যকার হিসেবে উপস্থিত হবেন। প্রযোজনা তিনটি হচ্ছে- নিলা ল্যাম এবং অ্যাঞ্জেলিকা ডথের -‘হোমওয়ার্ড’, জোয়েল হাসজার্ডের ‘টু জুম ডেটস’ এবং রিয়াজ মাহমুদের লেখা প্রথম নাটক ‘স্টার’।

নাটকের বিশ্বব্যাপী দর্শকদের জন্য হ্যাভেন থিয়েটার আমন্ত্রণ জানাচ্ছে মহামারী সময়ে নির্মিত সৃষ্টিগুলো উপভোগ করবার জন্য। বিশেষ করে কিছু নিরীক্ষামূলক কাজ রয়েছে এতে। যেমন এক্সাইল কিংবা রিফিউজির সংগ্রাম, অথবা বাড়ি ফেরার অন্তিম চেষ্টা নিয়ে সঙ্গীত ও শারীরিক মুভমেন্ট নির্ভর নিরীক্ষাতে সঙ্গীত স্রষ্টা নিলা লেম, লেখক অ্যাঙ্গেলিকা ডথ, অভিনেতা রিয়াজ মাহমুদ ও পরিচালক  জোয়েল হ্যাসজার্ড একটি নতুন অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে প্রযোজনাটি নির্মাণ করবার চেষ্টা করেছেন। নির্দেশক জোয়েলের ভাষ্যে, মঞ্চে পাশ্চাত্যের মিউজিকের সাথে  নিজস্ব কল্পনাশক্তি ও শারীরিক উপস্থিতির প্রয়োগে ডথের বাণীকে প্রস্ফুটিত করে তুলেছেন রিয়াজ মাহমুদ।

নয়টি নাটক হচ্ছে-রাবিই নার্গোই এর ‘চার্লিন এন্ড ডার্লিন’, হেলেনা রোপসের ‘কভিড মেইড মি ডু ইট’, অ্যানি মেসির ‘হুগস হুলাউ’, হেলেনা রোপসের- ‘লেপ্ট হ্যান্ড টার্ন’, ম্যারি বিম এর ‘ওর দ্য হাইওয়ে’, জেনেথ লুইসের ‘প্রিটি লিটল গার্লস’ এবং রিয়াজ মাহমুদের ‘স্টার’।

Leave a Reply