টিউলিপের দেশ হল্যান্ডে বৃত্তি নিয়ে উচ্চশিক্ষা

টিউলিপের দেশ হল্যান্ডে বৃত্তি নিয়ে উচ্চশিক্ষা

ইউরোপ মানে প্রাচীরবিহীন স্বাধীন জীবন। এক দেশ থেকে আরেক দেশে ভিসা ফ্রি ভ্রমণ, পড়ালেখার উন্নতমান, বসবাসের নির্ভরযোগ্য ও শান্তিপূর্ণ সুযোগ, সবুজের হাতছানি, সুন্দরের স্বর্গ, প্রকৃতির মনোরম সব দৃশ্যের সমাহারে মিলেমিশে সত্যিই আকর্ষণীয় একটি মহাদেশ। আর তার মধ্যে হল্যান্ডের তুলনা সে নিজেই। এটাকে বলা হয় টিউলিপের দেশ। কারণ দেশটিতে টিউলিপ ফুলের চাষ হয় সর্বাধিক। প্রকৃতি যেন দেশটিকে আপন হাতে জিয়েছেন। এমন সুন্দর দেশে থেকে পড়ালেখার সুযোগ কেই বা হাতছাড়া করতে চায়।

হল্যান্ডে পড়ালেখার মান ইউরোপের নয় শুধু বিশ্বে সর্বজন স্বীকৃত। দেশটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য প্রতি বছর অনেক বৃত্তিও প্রদান করে থাকে।

এর মধ্যে হল্যান্ড সরকার কর্তৃক প্রদত্ত হল্যান্ড স্কলারশিপ পছন্দের বৃত্তি।এ স্কলারশিপের লক্ষ্য হলো, একটি সমাজের টেকসই এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নে অবদান রাখা। এটি মূলত কিছু নির্দিষ্ট দেশের   মিড-কেরিয়ার পেশাদারদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়।

এই বৃত্তির সংক্ষিপ্ত কোর্সে সময়কাল ২ সপ্তাহ থেকে ১২ মাস এবং মাস্টার্স প্রোগ্রামে সময়কাল ১২ থেকে ২৪ মাস। কর্মসূচিটি ডাচ আন্তর্জাতিক বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক পরিবেশিত এবং অর্থায়িত হয় এবং নুফিক নেদারল্যান্ড দ্বারা পরিচালিত হয়।  

যারা আবেদন করতে পারবেন:

এ স্কলারশিপটি মধ্য-পেশার পেশাদারদের জন্য উন্মুক্ত। যারা মূলত নিম্নের দেশগুলোতে বসবাস এবং কাজ করে যাচ্ছেন যেমন-আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, বেনিন, বুর্কিনা ফাসো, বুরুন্ডি, কলম্বিয়া, কঙ্গো (ডিআরসি), মিশর, ইথিওপিয়া, ঘানা, গুয়াতেমালা, গিনি, ইরাক, জর্দান, কেনিয়া, লেবানন, লাইবেরিয়া, মালি, মোজাম্বিক, মায়ানমার, নাইজার, নাইজেরিয়া, ফিলিস্তিনি অঞ্চল , রুয়ান্ডা, সেনেগাল, সিয়েরা লিওন, সোমালিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, দক্ষিণ সুদান, সুদান, সুরিনাম, তানজানিয়া, তিউনিসিয়া, উগান্ডা, ভিয়েতনাম, ইয়েমেন এবং জাম্বিয়া।

যেভাবে আবেদন করতে হবে:

এই বৃত্তির জন্য অনলাইন ওয়েবসাইটে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন না। আপনাকে প্রথমে একটি কোর্স নির্বাচন করতে হবে এবং তারপরে আপনার কোর্সের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগ করতে হবে এবং বৃত্তির জন্য কীভাবে আবেদন করতে হবে তা জিজ্ঞাসা করতে হবে।

ফেব্রুয়ারি-মে মাসে আবেদন করা হয়। ২০২১ সালের জন্য নতুন বছরের ফেব্রুয়ারি আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হবে।

প্রার্থীকে আবেদনের ৩ টি রাউন্ড অতিক্রম করতে হবে, যথা-

 ক.  প্রার্থীরা তাদের ডাচ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে নিবন্ধন করবেন।

খ. ডাচ প্রতিষ্ঠান প্রার্থীদের মনোনিত করে অনুদানের আবেদন জমা দিবে।

গ. দূতাবাস যোগ্যতা পরীক্ষা করবে এবং অ্যাপ্লিকেশনগুলো মূল্যায়ন করবে

এরপর নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ করা হবে অনুদান পুরস্কার প্রদান করা হবে।

এই পুরস্কার এককালিন ৫ হাজার ইউরো তথা ৫ লক্ষাধিক। বিস্তারিত জানতে: https://www.studyinholland.nl/finances/orange-knowledge-programme

Leave a Reply