ট্রান্সজেন্ডার নিয়োগে কর ছাড় পাবে প্রতিষ্ঠান
কোন প্রতিষ্ঠান ১০০ জন ট্রান্সজেন্ডার কর্মী নিয়োগ দিলে ৫ শতাংশ কর ছাড়ের প্রস্তাব দেয়া হতে পারে।

ট্রান্সজেন্ডার নিয়োগে কর ছাড় পাবে প্রতিষ্ঠান

ইমিগ্রেশন নিউজ ডেস্ক :

দেশের অর্থনীতির মূল ধারার সঙ্গে ট্রান্সজেন্ডারদের (হিজড়া নামে পরিচিত) সম্পৃক্ত করতে বিশেষ পরিকল্পনা নিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এর অংশ হিসেবে কোন প্রতিষ্ঠান ১০০ জন ট্রান্সজেন্ডার কর্মী নিয়োগ দিলে ৫ শতাংশ কর ছাড়ের প্রস্তাব দেয়া হতে পারে।  

২০১৪ সালের জানুয়ারিতে সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে সম্প্রদায়টিকে লিঙ্গ হিসাবে স্বীকৃতি দিয়েছে। তবুও, এই তাদেরকে চাকরির ক্ষেত্রে সাদরে গ্রহণ করা হয় না। তাই আশা করা হচ্ছে ট্রান্সজেন্ডার নিয়োগে কর ছাড় দেয়া হলে অবস্থার পরিবর্তন আসবে। 

ট্রান্সজেন্ডরদের অবশ্য সরকারের সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প থেকে ভাতা দেয়া হয়। চলতি অর্থবছরে ট্রান্সজেন্ডার, বেদে ও সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর সহায়তায় ৪৬ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। 

এছাড়া আগামী অর্থবছরে ব্যবসায় থেকে আয়ের উপর কর প্রদানের ক্ষেত্রে ছাড় পেতে পারেন নারী উদ্যোক্তারা। নারী উদ্যোক্তা পরিচালিত সংস্থাগুলির জন্য ২০২১-২২-এ অর্থবছরে ন্যূনতম করের বার্ষিক টার্নওভারের পরিমাণ এখন ৫০ লাখ থেকে ৭০ লাখ করা হতে পারে। 

সে কর্মকর্তা বলেন, নারী উদ্যোক্তা পরিচালিত সংস্থাগুলির বাৎসরিক আয়ের জন্য আমাদের আলাদা কর হার নেই। তবে আমরা মনে করি যে তাদের উত্সাহিত করার জন্য বিশেষ উত্সাহ দেয়া জরুরি।

বর্তমানে নারীদের জন্য পৃথক করমুক্ত আয়সীমার ব্যবস্থা রয়েছে। আমরা তাদের ব্যবসার জন্য  বাৎসরিক আয়ের পৃথক করেরও ব্যবস্থা করছি। নারী করদাতাদের বর্তমান করমুক্ত আয়ের সীমা বছরে ৩৫০,০০০ টাকা এবং আগামী অর্থবছরে তাতে কোন পরিবর্তন আসবে না। 

গত তিন দশক ধরে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ফলে দেশের বর্ধমান মধ্যবিত্ত শ্রেণীর নারীরা ব্যবসার ক্ষেত্রে আগ্রহী হয়ে উঠছে। তাদের উৎসাহিত করতেই এমন উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। 

Leave a Reply