প্রতারণা ঠেকা‌তে ক‌ঠোর হচ্ছে কানাডা ই‌মি‌গ্রেশ‌ন
ইমিগ্রেশন ও সিটিজেনশিপ মন্ত্রী মার্কো মেনডিসিনো

প্রতারণা ঠেকা‌তে ক‌ঠোর হচ্ছে কানাডা ই‌মি‌গ্রেশ‌ন

ইমিগ্রেশন নিউজ : ই‌মি‌গ্রেশ‌নের না‌মে প্রতারণা ঠেকা‌তে ক‌ঠোর কানাডা ইমিগ্রেশনের নামে ভুয়া তথ্য দিয়ে প্রতারণার বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানের ঘোষনা দিয়েছে কানাডা। দেশ‌টির ফেডারেল ইমিগ্রেশন ও সিটিজেনশিপ মন্ত্রী মার্কো মেনডিসিনো বলেছেন, ইমিগ্রেশন কনসাল্ট্যান্টদের উপর নজরদারি বাড়ানোসহ ইমিগ্রেশনের নামে প্রতারণায় নিয়োজিত অপরাধীদের চিহ্নিত করতে বিশেষ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

৫ মার্চ গণমাধ্যমকে দেয়া এক বিবৃতিতে মন্ত্রী জানান, ইমিগ্রেশন নিয়ে প্রতারণার বিরুদ্ধে প্রচারণার লক্ষ্যে ৫০ মিলিয়ন ডলারের একটি তহবিল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। আগামী কয়েক বছরে ইমিগ্রেশনের নামে প্রতারণা বিরোধী প্রচারণায় এই অর্থ ব্যয় করা হবে।

বিবৃতিতে ইমিগ্রেশন মন্ত্রী মার্কো মেনডিসিনো বলেন, অভিবাসন এবং ভ্রমণের জন্য সারা বিশ্বের মানুষের অন্যতম আগ্রহের গন্তব্য কানাডা। প্রতি বছর বছর হাজার হাজার মানুষ কানাডায় আসে। অভিবাসনের আবেদনের সময় অনেকেই পরামর্শকদের শরণাপন্ন হয় এবং বিভিন্নজনের সহায়তা নেয়। তিনি বলেন, অধিকাংশ পরামর্শকই নিয়মনীতি অনুসরণ করে কাজ করলেও এক শ্রেণির অসাধু পরামর্শক অভিবাসন পদ্ধতির অপব্যবহার করে সুবিধা নেওয়ার চেষ্টা করে। তিনি পরামর্শকের প্রয়োজন হলে কেবল কানাডা সরকারের অনুমোদিত আইনজীবী বা অভিবাসন পরামর্শকদের সহায়তা নেওয়ার পরামর্শ দেন।

প্রতারণা ঠেকা‌তে ক‌ঠোর কানাডা ই‌মি‌গ্রেশ‌ন

মন্ত্রীর বিবৃতিতে বলা হয়, অভিবাসনের নামে প্রতারণা বন্ধ করতে কানাডা সরকার অব্যাহতভাবে কাজ করে যাচ্ছে। অভিবাসনে আগ্রহীদের সুরক্ষা দেওয়ার চেষ্টা করছে কানাডা। তিনি বলেন, অভিবাসন পদ্ধতিকে শক্তিশালী করতে আবেদন জমা দেওয়া থেকে নিষ্পত্তি পর্যন্ত নজরদারি বাড়ানো, প্রতারণা বিরোধী প্রচারণাসহ বেশ কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। ইমিগ্রেশন মন্ত্রী কানাডায় অভিবাসনে আগ্রহীদের মৌলিক কতগুলো বিষয়ের দিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, কেউ নিজে কিংবা পরামর্শকের সাহায্য নিয়ে যেভাবেই অভিবাসনের আবেদন করুন না কেন কানাডা সব আবেদনপত্রকেই সমান গুরুত্ব দিয়ে দেখে।

কেউ বাড়তি কোনো মনোযোগ বা সুবিধা পায় না। তিনি উল্লেখ করেন, কানাডা ইমিগ্রেশনের ওয়েবসাইটে অভিবাসনের নিয়মাবলী এবং প্রক্রিয়া অত্যন্ত সহজভাবে উল্লেখ করা আছে। অভিবাসনের নামে প্রতারণার বিরুদ্ধে সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী অ‌ভিবাসনপ্রত‌্যাশী‌দের যেকোনো প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা করে কানাডার অভিবাসন পদ্ধতির সুনাম অক্ষুন্ন রাখার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

প্রসঙ্গত, কানাডায় ইমিগ্রেশনের নামে বিভিন্ন দেশে প্রতারণার কথা অনেকদিন ধরেই আলোচিত হচ্ছিল। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি কানাডার বাংলা পত্রিকা ‘নতুনদেশ’ এর প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগরের সঞ্চালনায় টরন্টো থেকে সম্প্রচারিত ‘শওগাত আলী সাগর লাইভে’ কানাডা ইমিগ্রেশনের বিভিন্ন প্রতারণা নিয়ে আলোচনা হয়। এ‌তে উঠে আসা প্রতারণার নানা চিত্রের একটি সারসংক্ষেপ ইমিগ্রেশন মন্ত্রীকেও পাঠানো হয় বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

This Post Has One Comment

  1. Md. Mizanur Rahaman

    কানাডায় ইমিগ্রেশন এর ক্ষেত্রে ইমিগ্রেশন আগ্রহীরা যাতে সকল ধরনের প্রতারণা থেকে নিজেদেরকে রক্ষা করে কানাডায় ইমিগ্রেশন এর ক্ষেত্রে কাজ করতে পারে এর যথার্থ ব্যবস্থা কানাডা সরকার কানাডার ইমিগ্রেশন সংস্থা এবং বাংলাদেশের সরকারকে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা অতি প্রয়োজন কারণ এই পৃথিবীতে প্রত্যেকটা ক্ষেত্রে বিশেষ করে বাংলাদেশ সব ব্যবসায়ী চাইতে অসৎ ব্যবসায়ী সংখ্যায় বেশি।

Leave a Reply