বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের বছরে ১৩০টি বৃত্তি দেবে হাঙ্গেরি
বাংলাদেশ থেকে বছরে ১৩০ জন শিক্ষার্থী হাঙ্গেরিতে পূর্ণ বৃত্তিসহ স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি পর্যায়ে পড়াশোনার সুযোগ পাবেন।

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের বছরে ১৩০টি বৃত্তি দেবে হাঙ্গেরি

ইমিগ্রেশন নিউজ ডেস্ক : 

বাংলাদেশ ও হাঙ্গেরির মধ্যে শিক্ষাসংক্রান্ত একটি সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। এর ফলে বাংলাদেশ থেকে বছরে ১৩০ জন শিক্ষার্থী হাঙ্গেরিতে পূর্ণ বৃত্তিসহ স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি পর্যায়ে পড়াশোনার সুযোগ পাবেন।

অস্ট্রিয়া থেকে বাংলাদেশ দূতাবাস গতকাল বৃহস্পতিবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এই সমঝোতা স্মারক সই হওয়ার কথা জানিয়েছে।বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী তিন বছরের জন্য বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা এই বৃত্তি পাবেন।

হাঙ্গেরির পররাষ্ট্র ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বুদাপেস্টে এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। হাঙ্গেরি, অস্ট্রিয়া, স্লোভেনিয়া ও স্লোভাকিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ আবদুল মুহিত বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে সই করেন।

আগামী তিন বছরের জন্য বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা এই বৃত্তি পাবেন।

হাঙ্গেরির পক্ষে সই করেন দেশটির পররাষ্ট্র ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কূটনীতিক একাডেমি ও স্টাইপেনডিয়াম হাঙ্গেরিকাম বিষয়ক স্টেট সেক্রেটারি অরসোলিয়া পাচসায়-টোমাসিচ। এ সময় ভিয়েনায় বাংলাদেশ দূতাবাসের মিনিস্টার ও মিশন উপপ্রধান রাহাত বিন জামান এবং বুদাপেস্টে বাংলাদেশের অনারারি কনসাল ড. গ্রেগ পাতাকি উপস্থিত ছিলেন।

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের আগে দুই দেশের প্রতিনিধিদের মধ্যে বৈঠক হয়। বৈঠকে বাংলাদেশ ও হাঙ্গেরির মধ্যে ক্রমবর্ধমান দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ভবিষ্যৎ রোডম্যাপ নিয়ে আলোচনা হয়। সমঝোতা স্মারকে বাংলাদেশি শিক্ষার্থী-পেশাজীবীদের নিউক্লিয়ার এনার্জেটিক্স বিষয়ে পড়াশোনার জন্য ৩০টি বৃত্তি নতুনভাবে সংযোজিত হয়েছে।

২০১৭ সালে স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী, তিন বছর ধরে হাঙ্গেরি সরকার বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য বার্ষিক ১০০টি বৃত্তি প্রদান করে আসছে। নতুন সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী, হাঙ্গেরি আগামী তিন বছর বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের বার্ষিক ১৩০টি করে বৃত্তি প্রদান করবে।

Leave a Reply