বা‌জে‌টে প্রবাসীদের জন্য যা যা থাক‌ছে
প্রবাস আয় প্রবাহ বাড়াতে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলো মাধ্যমে বিশেষ ‘প্যাকেজ কর্মসূচি’ চালুর উদ্যোগ নেওয়া হবে।

বা‌জে‌টে প্রবাসীদের জন্য যা যা থাক‌ছে

ই‌মি‌গ্রেশন নিউজ ডেস্ক :

বৈধপথে প্রবাসীদের আয় পাঠানোকে উৎসাহিত করতে আগামী অর্থবছরেও প্রবাসীদের আয়ের ওপর ২ শতাংশ হারে নগদ প্রণোদনা অব্যাহত রাখার প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। একইসঙ্গে অর্থমন্ত্রী জানান, প্রবাসীদের আয় প্রবাহ বাড়াতে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের মাধ্যমে বিশেষ ‘প্যাকেজ কর্মসূচি’ চালুর উদ্যোগ নেওয়া হবে।বৃহস্পতিবার ২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে এ প্রস্তাব রাখেন অর্থমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘করোনা মহামারির মধ্যে বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক মন্দাজনিত কারণে রফতানি বাণিজ্যের প্রবৃদ্ধি নিয়ে আমরা যখন অনিশ্চয়তার মধ্য দিয়ে যাচ্ছি, তখন প্রবাসীদের আয়ের এ অভাবনীয় সাফল্য আমাদের স্বস্তির মধ্যে রেখেছে। চলতি অর্থবছরের এপ্রিল পর্যন্ত প্রবাস আয় এসেছে ২২.৭৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, যেখানে প্রবৃদ্ধি ৪০.১ শতাংশ।’

‘প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রবাস আয়ের ওপর ২ শতাংশ হারে নগদ প্রণোদনা অব্যাহত রাখা এবং অর্থ প্রেরণ প্রক্রিয়া সহজ করার এটি সম্ভব হয়েছে। তাই আগামী অর্থবছরেও এ খাতে ২ শতাংশ হারে নগদ প্রণোদনা অব্যাহত রাখার প্রস্তাব করছি।’
এ সময় অর্থমন্ত্রী জানান, প্রবাস আয় প্রবাহ বাড়াতে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলো মাধ্যমে বিশেষ ‘প্যাকেজ কর্মসূচি’ চালুর উদ্যোগ নেওয়া হবে।
নতুন অর্থবছরে ‘জীবন ও জীবিকার প্রাধান্য, আগামীর বাংলাদেশ’ শীর্ষক প্রস্তাবিত বাজেটের আকার ধরা হয়েছে ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা।

দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ঘাটতি বাজেট হতে যাচ্ছে ৫০তম এ বাজেট। আলোচিত এই বাজেটে অনুদানসহ ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়াচ্ছে ২ লাখ ১১ হাজার ১৯১ কোটি টাকা। যা জিডিপির ৬ দশমিক ১ শতাংশ। অনুদান বাদ দিলে ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়ায় ২ লাখ ১৪ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা।

Leave a Reply