বিনিয়োগের সম্ভাবনাময় গন্তব্য বাংলাদেশ
বিনিয়োগের সম্ভাবনাময় গন্তব্য বাংলাদেশ—জাপানি বিনিয়োগকারীদের রাষ্ট্রদূত শাহাবুদ্দিন

বিনিয়োগের সম্ভাবনাময় গন্তব্য বাংলাদেশ

ইমিগ্রেশন নিউজ ডেস্ক :

জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শাহাবুদ্দিন আহমদ বলেছেন, বর্তমান বিশ্বে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক উন্নয়নের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। গত বুধবার (৩০ জুন) জাপানের শিজুওকা শহরের ‘শিজুওকা কনভেনশন অ্যান্ড আর্টস সেন্টারে’ টোকিওর বাংলাদেশ দূতাবাস আয়োজিত বাণিজ্য, বিনিয়োগ ও দক্ষ মানবসম্পদ উন্নয়নবিষয়ক সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য প্রদানকালে এ কথা বলেন তিনি। সেমিনারে জাপানি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শতাধিক প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন।

রাষ্ট্রদূত সেমিনারে উপস্থিত সবাইকে শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিভিন্ন উন্নয়ন সূচকে অগ্রগামী, ইতিমধ্যে বাংলাদেশ জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসি (সিডিপি) কর্তৃক স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে উত্তরণের সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছে। রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, জাপানসহ বিশ্বের অন্যান্য উন্নত রাষ্ট্রের কাছে বাংলাদেশ এখন বিনিয়োগ, বাণিজ্য ও দক্ষ মানবসম্পদের জন্য আদর্শ গন্তব্য। তিনি বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরিবেশ ও বিনিয়োগকারীদের জন্য বিভিন্ন আর্থিক ও অ–আর্থিক প্রণোদনার কথা উল্লেখ করেন, এ সময় তিনি বাংলাদেশে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল (ইকোনমিক জোন) প্রতিষ্ঠার কথা উল্লেখ করেন, যেখানে একটি ইকোনমিক জোন শুধু জাপানি বিনিয়োগকারীদের জন্য সংরক্ষিত। রাষ্ট্রদূত জাপানি ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগের আহ্বান জানান এবং জাপানের জনশক্তি নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়োগের অনুরোধ করেন।

সেমিনারে শিজুওকা সিটি অফিসের ইকোনমিক অ্যাফেয়ার ব্যুরোর ডিরেক্টর হিরোতোশি কানো বক্তব্য প্রদান করেন এবং বাংলাদেশে জাপানি বিনিয়োগের সুযোগ-সুবিধার বিস্তারিত তুলে ধরেন দূতাবাসের বাণিজ্যিক কাউন্সেলর আরিফুল হক। পাশাপাশি বাংলাদেশে জাপানের বিনিয়োগচিত্র তুলে ধরেন জাপান ইন্টারন্যাশনাল কোঅপারেশন এজেন্সির (জাইকা) দক্ষিণ এশিয়া বিভাগের ডেপুটি-ডিরেক্টর সিকো ইয়ামাবে এবং বাংলাদেশের অর্থনীতি ও জাপানি বাণিজ্যের গতিধারা নিয়ে আলোচনা করেন জাপান এক্সটার্নাল ট্রেড অর্গানাইজেশনের (জেট্রো) বাংলাদেশ প্রতিনিধি ইউজি আন্দো।

এ ছাড়া বাংলাদেশের মানবসম্পদ উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা করেন দূতাবাসের শ্রম কাউন্সেলর জাকির হোসেন। এ সময় বাংলাদেশি কর্মী পাঠানো ও গ্রহণসংক্রান্ত কাঠামো বিশ্লেষণ করেন জাপান ইন্টারন্যাশনাল ট্রেনি অ্যান্ড স্কিল্ড ওয়ার্কার কোঅপারেশন অর্গানাইজেশনের (জিটকো) এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট শিম্পেই সুগিরা, টেকনিক্যাল ইন্টার্ন প্রোগ্রামে বাংলাদেশের দক্ষ লোকবল বিষয়ে আলোচনা করেন আই অ্যাম জাপান নামের প্রতিষ্ঠানের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর কাজুও সুবোতা এবং মাচিদা হাসপাতালের চিফ ডিরেক্টর কেইসু কে ইরাকো।

সেমিনারটি আয়োজনে সহযোগিতা করে শিজুওকা সিটি অফিস, শিজুওকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, শিজুওকা সিটি অ্যাসোসিয়েশন ফর মাল্টিকালচারাল এক্সচেঞ্জ, জাইকা, জেট্রো–শিজুওকা অফিস, জিটকো, ইউনিডো-আইটিপিও টোকিও, আই অ্যাম জাপান এবং ফ্লেয়ার কোম্পানি। সেমিনারে বাংলাদেশের উন্নয়নসংক্রান্ত তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

শিজুওকা সফরের প্রথম পর্যায়ে রাষ্ট্রদূত প্রবাসী বাংলাদেশিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এ ছাড়া রাষ্ট্রদূত আহমদ শিজুওকা শহরের মেয়র নবুহিরো তানাবের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এ সময় তিনি মেয়রকে বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নের বিভিন্ন দিক বর্ণনা করেন এবং বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় পাশে থাকার আহ্বান জানান। তিনি শিজুওকায় বসবাসকারী বাংলাদেশিদের সহযোগিতার জন্য মেয়র তানাবেকে বিশেষভাবে অনুরোধ করেন।

বিজ্ঞপ্তি

Leave a Reply