বি‌শেষ ব‌্যবস্থায় বিদেশ থেকে বাংলাদেশে আসতে যা কর‌তে হ‌বে
দেশে আসতে নিরুৎসাহিত করছে সরকার। এরপরও জরু‌রি প্রয়োজ‌নে আস‌ছেন অ‌নেকে।

বি‌শেষ ব‌্যবস্থায় বিদেশ থেকে বাংলাদেশে আসতে যা কর‌তে হ‌বে

ই‌মি‌গ্রেশন নিউজ ডেস্ক :
লকডাউন চলাকালে দেশে আসতে নিরুৎসাহিত করছে সরকার। এরপরও জরু‌রি প্রয়োজ‌নে আস‌ছেন অ‌নেকে। বাংলাাদেশ আসা যাবে ৭ দেশ থেকে। দেশগুলো হচ্ছে, চীন, বাহরাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, কাতার, সিঙ্গাপুর ও সৌদি আরব। অন্য দেশ থেকে এসব দেশে ট্রানজিট হয়েও আসা যাবে না।
বাংলা‌দে‌শে আস‌তে হ‌লে কিছু নিয়ম মান‌তে হ‌বে। সেগু‌লো হ‌লো:
দেশে আসতে হলে প্রত্যেক যাত্রীকে দেশে আসার সময় কোভিড নেগেটিভ সার্টিফিকেট বাধ্যতামূলকভাবে থাকতে হবে। যাদের করোনার ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ নেওয়া আছে এবং করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিয়ে আসবেন তাদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা লাগবে না। তারা বাড়িতে যেয়ে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকবেন। স্থানীয় প্রশাসন তা নিশ্চিত করবে।

যাদের করোনার জন্য ভ্যাকসিন নেন নাই, তাদের করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকটে থাকলে ৩ দিনের বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হবে। তাদের দেশে আসার পর আবার করোনা টেস্ট করা হবে। তাতে নেগেটিভ রিপোর্ট আসলে বাকি ১১ দিন বাড়িতে গিয়ে কোয়ারেন্টিনে থাকবেন। স্থানীয় পুলিশ, প্রশাসন তা নজরদারি করবে।

যাদের করোনার ভ্যাকসিনের একটি ডোজ নেওয়া আছে, কিন্তু ২য় ডোজ নেননি তারা করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকটে থাকলে ৩ দিনের বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। দেশে আসার পর আবার করোনা টেষ্ট করা হবে। তাতে নেগেটিভ রিপোর্ট আসলে বাকি ১১ দিন বাড়িতে গিয়ে কোয়ারেন্টিনে থাকবেন। স্থানীয় পুলিশ, প্রশাসন তা নজরদারি করবে।

সেনাবাহিনী পরিচালিত কোয়ারে‌ন্টিন সেন্টারে বিনামূল্যে থাকতে পারবেন প্রবাসীরা। তবে সেখানে খালি না থাকলে হোটলে নিজ খরচে কোয়ারান্টাইনে যেতে হবে।

Leave a Reply