ভারতের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধ রাখা হবে ৩০ জুন পর্যন্ত
করোনাভাইরাসে চলমান পরিস্থিতিতে প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধ রাখার মেয়াদ আরও এক দফা বাড়িয়েছে সরকার।

ভারতের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধ রাখা হবে ৩০ জুন পর্যন্ত

ইমিগ্রেশন নিউজ ডেস্ক :

করোনাভাইরাসে চলমান পরিস্থিতিতে প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধ রাখার মেয়াদ আরও এক দফা বাড়িয়েছে সরকার। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দেশটির সঙ্গে সীমান্ত বন্ধ রাখা হবে ৩০ জুন পর্যন্ত। রবিবার (১৩ জুন) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

মন্ত্রণালয়ের একাধিক সূত্র বলছে, ভারত সীমান্ত খোলা নির্ভর করছে সে দেশের করোনা পরিস্থিতির ওপর। সেখানে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হলে সহসাই সীমান্ত খোলার সম্ভাবনা নেই। তবে আপাতত তা ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। পর্যালোচনার মাধ্যমে তা প্রয়োজনে আরও বাড়ানো হবে।

ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ চরমে পৌঁছালে গত ২৬ এপ্রিল থেকেই দেশটির সঙ্গে সীমান্ত করে সরকার। মাঝে কয়েক দফায় বন্ধের মেয়াদ বাড়ানো হয়। সর্বশেষ তা ৩০ মে ১৪ জুন করা হয়। এবার তা ৩০ জুন পর্যন্ত করা হলো।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ বন্দর দিয়ে আটকে পড়াদের দেশে ফেরার সুযোগও বন্ধ থাকছে। সেখানে করোনার উচ্চ সংক্রমণ, ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট চিহ্নিত ও লকডাউন চলার কারণে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সীমান্ত যোগাযোগ বন্ধ থাকলেও ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের পণ্যবাহী যানবাহন চলাচল অব্যাহত আছে।

Leave a Reply