মালয়েশিয়ায় কঠোর লকডাউন : নানা সংকটে প্রবাসী বাংলাদেশি
সংকটে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি মালয়েশিয়া প্রবাসীদের

মালয়েশিয়ায় কঠোর লকডাউন : নানা সংকটে প্রবাসী বাংলাদেশি

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া :

মালয়েশিয়ায় বৈধতার সুযোগ বাড়ানো হলেও চলমান রয়েছে ইমিগ্রেশন বিভাগের ধরপাকড় অভিযান। এমন পরিস্থিতিতে মালয়েশিয়া প্রবাসীরা দেশটির সঙ্গে সরাসরি বিমান চালুর বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারের কাছে।

এদিকে মালয়েশিয়ায় দীর্ঘ একমাস ধরে চলছে কঠোর লকডাউন। লকডাউনে অনেকে কর্মহীন অবস্থায় চরম কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন। চলমান সংকটে কর্মহীন অসহায় কর্মীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিত্তবান কয়েকজন প্রবাসী। বাংলাদেশ প্রেসক্লাব অব মালয়েশিয়ার সভাপতি ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মনির বিন আমজাদ প্রবাসীদের প্রায় সাড়ে ৬ হাজার প্যাকেট খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন। এ সহায়তা চলমান থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

মালয়েশিয়া প্রবাসীরা দেশটির সঙ্গে সরাসরি বিমান চালুর বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারের কাছে।

১ জুলাই মালয়েশিয়ায় অবৈধ বাংলাদেশিসহ বিদেশি শ্রমিকদের বৈধ হওয়ার সময়সীমা বৃদ্ধি করেছে দেশটির সরকার। চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়সীমা বলবৎ থাকবে। বৈধতার সুযোগ নিতে হবে কোম্পানির মালিকদের মাধ্যমে।

এদিকে মালয়েশিয়ায় প্রবাসীদের বৈধকরণের মেয়াদ বাড়ালেও পাসপোর্ট জটিলতা থেকেই গেছে। অনেকে বলছেন, আবেদন করে ৫-৬ মাসেও পাচ্ছেন না নতুন পাসপোর্ট। ফলে পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হওয়ায় তারা অবৈধ থাকার ঝুঁকিতেই থাকছেন। 

তবে হাইকমিশনের একটি সূত্রে জানা গেছে, চলমান মহামারির সময়ে ২০২০ সালের নভেম্বর থেকে ২০২১ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত পাসপোর্টের আবেদন জমা পড়ে ১ লাখ ৯০ হাজার। এর মধ্যে করোনার ঝুঁকি নিয়েও ১ লাখ ৬০ হাজার পাসপোর্ট বিতরণ করা হয়েছে। 

গত কয়েকদিন ধরে মালয়েশিয়ায় চলছে ব্যাপক ধরপাকড়। চলমান লকডাউনে গত ৬, ২১, ২৯ ও ৩০ জুন অভিবাসন বিভাগের পৃথক পৃথক অভিযানে ৯৩৮ জন অবৈধ অভিবাসীকে গ্রেফতার করে ইমিগ্রেশন পুলিশ। কাগজপত্র না থাকার অভিযোগে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এর মধ্যে রয়েছেন ২৭০ জন বাংলাদেশিও।