মালয়েশিয়া প্রবাসীদের জন‌্য চালু হ‌লো ‘বাংলা টাইগার ডিজিটাল’
বাংলাদেশ হাইকমিশন ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ‘বাংলা টাইগার ডিজিটাল’ এর ব্যানারে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম উদ্বোধন করেছে।

মালয়েশিয়া প্রবাসীদের জন‌্য চালু হ‌লো ‘বাংলা টাইগার ডিজিটাল’

ই‌মি‌গ্রেশন নিউজ : ডিজিটাল পদ্ধতিতে শতভাগ সেবা দেওয়ার পথে এবার মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে বাংলাদেশ হাইকমিশন চালু করেছে ‘বাংলা টাইগার ডিজিটাল’ নামের একটি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন ভার্চুয়াল মাধ্যমে যুক্ত হয়ে ১০ মার্চ এই ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের উদ্বোধন করেন।

মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. গোলাম সারওয়ার জানান, মালয়েশিয়ায় বসবাসরত বিপুলসংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশির সঙ্গে সংযোগ বাড়ানোর লক্ষ্যে বাংলাদেশ হাইকমিশনের নিজস্ব ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ‘বাংলা টাইগার ডিজিটাল’ তৈরি করেছে। এই প্রয়াসে হাইকমিশনের টেকনোলজি পার্টনার হিসেবে কাজ করেছে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ‘ডটলাইনস’। হাইকমিশন বলছে, প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহার করে প্রবাসীরা সহজেই পাসপোর্ট, বৈধকরণ, চাকরির আবেদনসহ বিভিন্ন ধরনের সেবা পাবেন। এজন্য সেবাপ্রার্থীদের কোনো টাকা খরচ করতে হবে না।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব মাশফী বিনতে শামস বলেন, এই প্ল্যাটফর্মটি প্রধানমন্ত্রীর ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার লক্ষ্যে জনসেবা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে একটি উদাহরণ। হাইকমিশনের সময়োচিত উদ্যোগের ফলে বিপুলসংখ্যক প্রবাসী উপকৃত হবেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার বক্তব্যে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে প্রবাসীদের বিশাল অবদানের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি প্রবাসীদের কল্যাণে বর্তমান সরকারে নেওয়া বিভিন্ন উদ্যোগের কথাও তুলে ধরেন।

এছাড়া, তিনি এ ধরনের উদ্যোগ নেওয়ায় হাইকমিশনকে ধন্যবাদ জানান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলা টাইগার ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের ওপর নির্মিত অডিও-ভিজ্যুয়ালও প্রদর্শন করা হয়। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন হাইকমিশনের উপহাইকমিশনার ও মিনিস্টার মো. খোরশেদ এ খাস্তগির।

অনুষ্ঠান শেষে ডিপ্লোমেটিক করেসপন্ডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশের (ডিক্যাব) সদস্যদের সঙ্গে হাইকমিশনার মতবিনিময় করেন। এর মাধ্যমে কুয়ালালামপুরে বাংলাদেশ হাইকমিশন বিদেশে বাংলাদেশের প্রথম পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল মিশন হিসেবে গড়ে ওঠার ক্ষেত্রে একধাপ এগিয়ে গেল। হাইকমিশন ভবিষ্যতে মোবাইল টেলিফোনি, স্বাস্থ্যসেবা, রেমিটেন্সের মতো নতুন নতুন সেবা যুক্ত করার পরিকল্পনা করছে।

Leave a Reply