মিয়ানমারে রাতভর অভিযান, নিহত অন্তত ৬০
ইয়াঙ্গুনের বোগো শহরে রাতভর অভিযান চালিয়ে অন্তত ৬০ জনকে হত্যা করেছে সামরিক জান্তা।

মিয়ানমারে রাতভর অভিযান, নিহত অন্তত ৬০

ইমিগ্রেশন নিউজ ডেস্ক :

মিয়ানমারে অভ্যুত্থানবিরোধীদের বিরুদ্ধে রাতভর অভিযান চালিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী।  এ ঘটনায় অন্তত ৬০ জন নিহত হয়েছেন বলে আল জাজিরার প্রতিবেদনে জানানো হয়। নিরাপত্তা বাহিনী লাশ সরিয়ে ফেলায় সে সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে। 

যুক্তরাষ্ট্রের অর্থায়নে পরিচালিত রেডিও ফ্রি এশিয়াতে বলা হয়, ইয়াঙ্গুনের বোগো শহরে শুক্রবার (৯ এপ্রিল) রাত থেকে শনিবার (১০ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত বৃষ্টির মতো গোলাবর্ষণ করেছে সেনা ও নিরাপত্তাবাহিনী। ঘটনায় রাজপথে বিক্ষোভকারীদের ব্যারিকেড তুলে দিয়ে মেশিনগান, গ্রেনেড ও মর্টার শেল ব্যবহার করেছে জান্তা সরকার।

ঘটনার পর নিরাপত্তা বাহিনীরা লাশ সরিয়ে বোগো শহরের এক প্যাগোডা ও স্কুলে ফেলে রাখে। রাত ৮টা পর্যন্ত কেবল তিনজনের মৃতদেহ উদ্ধার করে বিক্ষোভকারীরা। গুলিবিদ্ধ হওয়া থেকে তাদের ধারণা অন্তত ৬০ জন নিহত হয়েছে। যে সংখ্যা আর বাড়তে পারে। রাষ্ট্রপরিচালিত মিয়ানমার রেডিও ও টেলিভিশনের (এমআরটিভি) এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুক্রবার (৯ এপ্রিল) ১৯ বেসামরিক লোককে কোর্ট মার্শালের মাধ্যমে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে জান্তা সরকার। তাদের বিরুদ্ধে গত মাসে ইয়াঙ্গুনের ওক্কালাপা এলাকায় এক সেনা কর্মকর্তাকে পেটানো এবং নির্যাতন করে আরেক ব্যক্তিকে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে।

এমন ঘটনায় মিয়ানমারে গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আর কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান জাতিসংঘে নিযুক্ত মিয়ানমারের দূত কিয়াও মোয়ে তুন। ফেব্রুয়ারির ১ তারিখ অং সান সুচি ও শীর্ষ নেতাদের আটক করে সেনা অভ্যুত্থান ঘটে দেশটিতে। তারপর থেকে গুলি চালিয়ে অন্তত ৬৮০ জনকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মানবাধিকার সংগঠনগুলো।  

Leave a Reply