সহজ হলো স্পেনের নাগরিকত্ব আইন, কী সুবিধা পাবেন অভিবাসীরা
অভিবাসীদের কাছে ইউরোপের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ স্পেন বরাবরই একটি পছন্দের দেশ। দেশটিতে সহজ শর্তে বৈধ হওয়ার সুযোগ থাকায় অভিবাসীরা ভিড় জমান।

সহজ হলো স্পেনের নাগরিকত্ব আইন, কী সুবিধা পাবেন অভিবাসীরা

ইমিগ্রেশন নিউজ ডেস্ক :

স্পেনে অভিবাসীদের জন্য নাগরিকত্ব আইন আরও সহজ হলো। স্পেনে টানা দুই বছর বসবাসের ডকুমেন্টেসহ ছয় মাস বৈধভাবে কাজ করার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিলে মিলবে এই বৈধতা। সম্প্রতি স্পেনের একটি আদালত নাগরিকত্ব আইন সংশোধন করে নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ২৫ মার্চ স্পেনের গ্রানাডার একটি আদালত একজন অভিবাসী মহিলার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ রায় দেন।

এ আইন অনুযায়ী এখন অনিয়মিতভাবে বসবাসকারী পিতামাতার সন্তান জন্ম হলেও সে স্প্যানিশ নাগরিকত্ব পাবে বা দুজনের মধ্যে একজন স্পেনে নিয়মিতভাবে বসবাস করলে তাদের সন্তানও স্প্যানিশ নাগরিকত্ব পাবে।

স্পেনে দুই বছর থেকে বসবাস করছেন এবং বিভিন্ন এসাইলাম নিয়ে কাজের পারমিশন পেয়ে কমপক্ষে ছয় মাস কাজ করেছেন এবং তার বিরুদ্ধে কোনো ক্রাইমে জড়িত থাকার প্রমাণ যদি না থাকে- শুধুমাত্র তারাই এ আবেদন করতে পারবেন। এছাড়া যাদের পূর্বে স্পেনের রেসিডেন্স কার্ড ছিল কোনো কারণে তাদের কার্ড বাতিল হয়ে গিয়েছে- এরকম যারা আছেন তাদের কর্মসংস্থান রেকর্ড প্রতিবেদন (বিদালাবোরাল) ছয় মাসের যদি থাকে তারা এ সুবিধার আওতায় পড়বেন।

এজন্য কোনো কাজের কন্ট্রাকের প্রয়োজন হবে না বা আরাইগো সার্টিফিকেটের প্রয়োজন হবে না। শুধু বিদালাবেরালের কপি এবং বাংলাদেশের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট হলেই স্পেনে বৈধতা পেতে পারে।

বৈবাহিক সূত্রে স্পেনের নাগরিকত্ব পেতে হলে পূর্বে তিন বছর সময় লাগত। কিন্তু বর্তমান আইনে তা দুই বছর করা হয়েছে এবং আরও বিভিন্ন অনুচ্ছেদে সময় উপযোগী কিছু সংশোধন করা হয়েছে। অভিবাসীদের কাছে ইউরোপের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ স্পেন বরাবরই একটি পছন্দের দেশ। দেশটিতে সহজ শর্তে বৈধ হওয়ার সুযোগ থাকায় অভিবাসীরা ভিড় জমান। স্বাধীনভাবে স্পেনে প্রবেশের অনুমতি দান করার ক্ষেত্রে ইউরোপিয়ান দেশগুলোর মধ্যে স্পেন প্রথম।

Leave a Reply