১১টি দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে সৌদি আরব
১১ দেশের ওপর থেকে ভ্রমণনিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার সৌদি আরবের

১১টি দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে সৌদি আরব

ইমি‌গ্রেশন নিউজ ডেস্ক :

সৌদি আরব প্রত্যাহার করেছে ১১টি দেশ থেকে ভ্রমণকারী যাওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা । বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে সৌদি আরব বিভিন্ন দেশের ভ্রমণকারীদের ওপর ভ্রমণনিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। এখন তারা ১১টি দেশের ওপর থেকে এ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল।

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম এসপিএ জানিয়েছে, ১১টি দেশের ভ্রমণকারীদের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হলেও কোয়ারেন্টিন বিধি বহাল থাকছে। অর্থাৎ, এই ১১ দেশ থেকে কোনো ভ্রমণকারী সৌদি আরবে এলে তাঁদের কোয়ারেন্টিন বিধি মানতে হবে।

এই ১১ দেশ হলো সংযুক্ত আরব আমিরাত, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, আয়ারল্যান্ড, জার্মানি, ইতালি, পর্তুগাল, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, ফ্রান্স ও জাপান। সৌদির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে এসপিএ গতকাল শনিবার এই দেশগুলোর নাম উল্লেখ করেছে।

স্থানীয় সময় আজ রোববার দিবাগত রাত একটা থেকে এই ১১ দেশের যাত্রীরা সৌদিতে যেতে পারবেন বলে আরব নিউজের প্রতিবেদনে জানানো হয়। খবরে বলা হয়, করোনা নিয়ন্ত্রণে উল্লিখিত দেশগুলোর তৎপরতার পরিপ্রেক্ষিতে তাদের লাল তালিকার (রেড লিস্ট) বাইরে রাখা হয়েছে।

সৌদির জনস্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ বলেছে, এই ১১ দেশ করোনা নিয়ন্ত্রণে ধারাবাহিকতা দেখাতে সক্ষম হওয়ায় তাদের ক্ষেত্রে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে ১৩টি দেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকছে। এই দেশগুলো হলো লিবিয়া, সিরিয়া, লেবানন, ইয়েমেন, ইরান, তুরস্ক, আর্মেনিয়া, সোমালিয়া, ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গো, আফগানিস্তান, ভেনেজুয়েলা, বেলারুশ ও ভারত।

সৌদি আরবে যাওয়া সব আন্তর্জাতিক যাত্রীকে বাধ্যতামূলকভাবে সাত দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। সরকারনির্ধারিত স্থাপনায় আগত যাত্রীদের কোয়ারেন্টিন করতে হবে। সৌদি আরবে যাওয়ার পরপরই কোয়ারেন্টিন শুরু হবে। কোয়ারেন্টিনে থাকার যাবতীয় খরচ সংশ্লিষ্ট যাত্রীদেরই বহন করতে হবে।

খবরে বলা হয়, সৌদি আরবে যাওয়ার সপ্তম দিনে যাত্রীদের পিসিআর করোনা পরীক্ষা করতে হবে। পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ এলে যাত্রীদের পরদিন কোয়ারেন্টিন ত্যাগের অনুমতি দেবে কর্তৃপক্ষ।

Leave a Reply