৫২টি দগ্ধ লাশের উপর দাঁড়িয়ে
'ও স্যার আমার মায়ের হাড্ডিগুলা খুঁইজ্জা দেননা স্যার।'

৫২টি দগ্ধ লাশের উপর দাঁড়িয়ে

হিমাদ্রী রয় :

‘ও স্যার আমার মায়ের হাড্ডিগুলা খুঁইজ্জা দেননা স্যার।’
কি মর্মস্পর্শী সংলাপ!

বুদ্ধিজীবী কোন পরিচালক
নিশ্চই চিত্রনাট্য তৈরি করবেন।
তাসলিমা আর্তশুস্ক মুখ নিয়ে দাঁড়াও,
তোমার মা ফিরোজা বেগমের গলিত শরীর কল্পনা করো,
অ্যাকশন, ক্যামেরা।

এবার বল ‘ও স্যার আমার মায়ের হাড্ডিগুলা’
তোমার আর্তনাদে আরেকটু
ক্রোধ ঢেলে দাও ততটাই যতটা দেখে
আন্তর্জাতিক মঞ্চে সবার রোমাঞ্চ লাগে।
যেন আগামী বছর অস্কারে সবাই চেনে এই দেশটাকে।

তার জন্য তোমাদের বারবার মরতে হবে পুড়তে হবে
মায়ের ভাইয়ের লাশের উপর,
কবর তৈরির রক্তাক্ত ইটের যোগান হতে হবে।
আর আমরা বিড় বিড় করে দোয়া পড়বো,
হে ঈশ্বর ৫২ জন মৃতের আত্মার হেফাজত করুন।


শুধু শব্দ করা যাবেনা
রাষ্ট্র চোখে শসা দিয়ে স্পা নিচ্ছে,
টিভির পর্দা ব্রেকিং নিউজ স্ক্রল করছে,
চায়ের কাপে চিনির মতো মিশে যাওয়াই বুদ্ধিমান নাগরিক,
আওয়াজ করা চলবে না।

গণতন্ত্র গোলযোগ পছন্দ করেনা।
তবে পরিণতি আসবে একদিন প্রলয় হয়ে
গান্ধারীর মতো চোখ বেঁধে
হস্তিনাপুর কে বাঁচানো যায় না।

জুলাই/১০

Leave a Reply